#সাচ্ছাদস্ত/ওয়ার্ডের বাইরে নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন। ওয়ার্ডের ভিতরে ছিলেন নার্স এবং অন্যান্য চতুর্থ শ্রেণির কর্মীরা। সকলের উপস্থিতিতেই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে মঙ্গলবার সকালে নিখোঁজ হয়ে গেল পাঁচ দিন বয়সী একটি শিশু।
হাসপাতালের সিসি়টিভি-র ফুটেজে ওই মহিলার ছবি ধরা পড়েছে। ওই মহিলাকে তার কিছু পরেই দেখা গিয়েছে সেন্ট্রাল মেট্রো স্টেশনে। সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ওই মহিলা একটি শিশুকে কোলে নিয়ে প্ল্যাটফর্মের ভিতরে ঢুকছেন। তাঁর ঠিক পিছনেই রয়েছেন এক যুবক। পুলিশের অনুমান, ওই যুবক মহিলার সঙ্গেই ছিলেন।
বেসরকারি হাসপাতালের পরিষেবা নিয়ে নানা অভিযোগে গত কয়েক দিন ধরেই সরগরম রয়েছে রাজ্য। এ বার খাস কলকাতা শহরে একটি সরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির এই অভিযোগকে ঘিরে অস্বস্তিতে পড়েছে স্বাস্থ্য দফতর। মেডিক্যাল কলেজের সুপার শিখা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, তিনি এ বিষয়ে যা জানাবার স্বাস্থ্য ভবনে জানিয়েছেন। স্বাস্থ্য সচিব রাজেন্দ্র শুক্লা বা ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য-শিক্ষা অধিকর্তা বিশ্বরঞ্জন শতপথী অবশ্য এ নিয়ে কোনও কথাই বলেননি।

                                                                                                                               to be continue
বাগমারি রোডের বাসিন্দা সরস্বতী নস্কর (২৬) গত বৃহস্পতিবার মেডিক্যালে ভর্তি হয়েছিলেন। শুক্রবার তিনি একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। ইডেন বিল্ডিং-এর তিন তলায় ১৭ নম্বর শয্যায় ভর্তি রয়েছেন তিনি। সরস্বতীর বক্তব্য, এ দিন বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ সবুজ শাড়ি পরা এক মহিলা ওয়ার্ডে এসে তাঁকে বলেন, ‘তোমার বাচ্চাকে পরীক্ষা করাতে নিয়ে যাব।’ সরস্বতীকে নিয়েই শিশু সমেত তিন তলা থেকে দোতলায় নামেন তিনি। সরস্বতীর অভিযোগ, ‘‘দোতলায় এসে উনি বললেন, এখানে ডাক্তার নেই। তাই আবার তিন তলায় যেতে হল। যাওয়ার পথে হঠাত্ই উধাও হয়ে যান তিনি। খোঁজ মেলেনি শিশুটিরও।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ দিন উত্তেজনা ছড়ায় মেডিক্যালে।
end